Home » খেলা » ক্রিকেট » সহসাই ফেরা হচ্ছে না তাসকিনের!

সহসাই ফেরা হচ্ছে না তাসকিনের!

মার্চ ২৯, ২০১৬ ৫:২৯ অপরাহ্ণ Category: ক্রিকেট, খেলা, সর্বশেষ, সর্বশেষ সংবাদ ::# A+ / A-

wnewsbd.com: সময়টা যখন মধুর কাটছিলো তখনই কাঁধে চেপেছে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ। পরীক্ষা দিয়ে আসার পর নিষিদ্ধও হতে হয়েছে।

যদিও বাংলাদেশ পেসার তাসকিন আহমেদের নিষিদ্ধ হওয়ার হওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি থেকে শুরু করে দলের কোনো ক্রিকেটারই।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তো কলকতায় বলেই এসেছেন যে, তাসকিনের সাথে চরম অবিচার করা হয়েছে। তবে এসবে কিছুই যায় এসে না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে হলে আবারো পরীক্ষা দিয়ে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে হবে বাংলাদেশের তরুণ এই পেসারকে।

এ লক্ষ্যে পূনর্বাসন প্রক্রিয়ায় কাজও শুরু করে দিয়েছেন তাসকিন। তবে সহসাই যে তার ফেরা হচ্ছে না সেটা বাংলাদেশের বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিকের কথাতেই বোঝা গেলো। জিম্বাবুয়ের সাবেক এই অধিনায়ক বলছেন বোলিং অ্যাকশন শুধরে আবারো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে এক মাস থেকে ছয় সপ্তাহ সময় ব্যয় করতে হতে পারে তাসকিনকে।

যদিও তাসকিনের ফেরার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী হিথ স্ট্রিক। মঙ্গলবার মিরপুরে এ নিয়ে স্ট্রিক বললেন, ‘আমাদের কোনো তাড়া নেই। আমার মনেহয় ব্যাপারটি তাকে এক মাস থেকে ছয় সপ্তাহ বিশ্রামে রাখবে। তাকে আবারো পাঠানোর আগে আমাদের অবশ্যই শতভাগ নিশ্চিত হতে হবে। পরীক্ষায় পাস করে আসাটা তার জন্য বড় কোনো সমস্যা বলে মনেহয় না। সে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলবে। তাই আমি আশাবাদী তাকে যে সামান্য পরিবর্তনের জন্য আমি বলেছি তাতে সে কমফোর্টই থাকবে। যখন আমরা সবকিছুতে সন্তুষ্ট হবো সে তখন যেতে পারবে।’

অন্য কোনো কিছুতে সমস্যা না থাকলেও তাসকিনের স্লোয়ার ডেলিভারিতে সমস্যা ছিলো সেটা স্বীকার করলেন হিথ স্ট্রিক। এ কারণেই বোলিং অ্যাকশনে খানিকটা পরিবর্তন আনতে বলেছেন স্ট্রিক, ‘তার সাথে কাজ শুরুর করার পর থেকে সত্যিই কখনো তার বোলিং অ্যাকশন বদলায়নি। তার দ্রুগ গতির সব ডেলিভারিই বৈধ। তার স্লোয়ার বাউন্সারে সমস্যা ছিলো। যেটা মানসিক অবসাদ থেকে হতে পারে। আমার মনে হয় না তার বোলিং অ্যাকশন ঠিক করার ব্যাপারটা খুব কঠিন। তার ক্রিকেটের ফেরার ব্যাপারে আমি আত্মবিশ্বাসী।’

তাসকিনের বল ছাড়ার ধরণ নিয়ে জিম্বাবুয়ের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি তার বাহু আরো একটু দ্রুতগতির করে তুলতে। পেছনের দিক থেকে সে যখন সমতল অবস্থান পায় সেটা ১০০ ভাগ সোজা। ১৫ ডিগ্রির সীমাটা আসলে খুবই ছোট। সে পরীক্ষায় ৪০টার মতো ডেলিভারি করেছে যেখানে তিনটি বাউন্সার অবৈধ হয়েছে। এটা খুব দ্রুত কাটিয়ে তোলা সম্ভব।’

সহসাই ফেরা হচ্ছে না তাসকিনের! Reviewed by on . wnewsbd.com: সময়টা যখন মধুর কাটছিলো তখনই কাঁধে চেপেছে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ। পরীক্ষা দিয়ে আসার পর নিষিদ্ধও হতে হয়েছে। যদিও বাংলাদেশ পেসার তাসকিন আহমেদের ন wnewsbd.com: সময়টা যখন মধুর কাটছিলো তখনই কাঁধে চেপেছে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ। পরীক্ষা দিয়ে আসার পর নিষিদ্ধও হতে হয়েছে। যদিও বাংলাদেশ পেসার তাসকিন আহমেদের ন Rating: 0
scroll to top